টেকনাফে পারিবারিক কলহের জেরে পুকুরে ঝাপ দিয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু!

  বিশেষ প্রতিনিধি    02-08-2023    54
টেকনাফে পারিবারিক কলহের জেরে পুকুরে ঝাপ দিয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু!

টেকনাফে পারিবারিক কলহের জের ধরে রুমানা রুমি(৩০) নামের এক গৃহবধূ সন্তানসহ পুকুরে ঝাপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মো. ইয়াসিন(৭) কে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও বাকি দুইজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। বিষয়টি জানিয়েছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. সেলিম।

নিহত দু’জন হলেন-উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের উত্তর পাড়া (বৈইঙ্গা পাড়া) আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী রুমানা রুমি(৩০) ও তার ৪০ দিন বয়সের মেয়ে। তবে ৪০ দিন বয়সের বাচ্চাটিকে এখনো খোঁজে পাওয়া যায়নি।

বুধবার (২ আগস্ট) ১০ টার দিকে টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের উত্তর নয়াপাড়া (বৈইঙ্গা পাড়া) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সাবরাং ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ সেলিম মেম্বার বলেন,পারিবারিক কলহের জেরে রুমানা রুমি ও তার স্বামী আব্দুর রাজ্জাকের মধোই দীর্ঘদিন ঝগড়া ও মান-অভিমান চলতেছে।এ ঘটনার জের ধরে বুধবার সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে পাশ্ববর্তী একটি পুকুরে দুই সন্তান সহ সেই নিজে ঝাপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এ সময় স্থানীয় লোকজন,পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন পুকুরে খোঁজাখুজি করার পর মো. ইয়াসিন ও রুমানা রুমি দু’জনকে উদ্ধার করা হলে,এ সময় রুমানা রুমি মারা যায়।পরে তার সন্তান মো. ইয়াসিনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।তবে এখনো পর্যন্ত নিখোঁজ শিশুকে পাওয়া যায়নি।স্থানীয়রা সহ পুলিশ ও ফায়ারসার্ভিসের সদস্যরা শিশুটিকে উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান,সকালের দিকে সাবরাং ইউনিয়নের ১নং ওযার্ডের বৈইঙ্গা পাড়ার একটি পুকুর থেকে রুমানা রুমি নামের এক মহিলার লাশ উদ্ধার করা হয়। তার ছেলে মো. ইয়াসিন(৭)কে জীবিত উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।এ ঘটনায় পুকুরে ৪০ দিন বয়সের একটি শিশু নিখোঁজ রয়েছে।তাকে উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরদের পাশাপাশি স্থানীয়রা উদ্ধারের তৎপরতা চালাচ্ছেন।

সারাদেশ-এর আরও খবর